আচরণবিধি সম্পর্কে

আমরা উচ্চমানের নৈতিক আচরণ দ্বারা কার্যক্রম পরিচালনা করি এবং আশা করি আমাদের সকল কর্মী, ব্যবসায়িক অংশীদার এবং সংশ্লিষ্ট সকলে একই মান বজায় রেখে বিশ্বব্যাপী কার্যক্রম পরিচালনা করবে। একটি দায়িত্বশীল প্রতিষ্ঠানের সুনাম এবং আমাদের চলমান ব্যবসায়িক সাফল্য ধরে রাখার জন্য এটি অপরিহার্য।

বিশ্বব্যাপী জেটিআই-এর সাথে যুক্ত সকল কর্মীসহ বহিরাগত কর্মচারি (যেমন সাময়িক কর্মচারি); এমনকি জেটিআই কর্তৃক সরাসরি নিয়োগপ্রাপ্ত না হলেও- এই আচরণবিধি সকলের ক্ষেত্রে প্রয়োজ্য।

আমাদের আচরণবিধিতে নির্ধারিত বিষয়সমূহ এরমধ্যেই সীমিত নয়। আচরণবিধিটি স্থানীয় আইন অথবা জেটিআই-এর পরিচালন নির্দেশিকা, নীতিমালা ও পদ্ধতিসমূহের বিকল্প নয়। যদি কোন ক্ষেত্রে জেটিআই আচরণবিধির কোন বিষয় প্রচলিত আইনের সাথে সাংঘর্ষিক হয়, তাহলে এক্ষেত্রে অবশ্যই তুলনামূলক কঠোর আইনটি অগ্রাধিকার পাবে। তবে, প্রচলিত আইন কখনও লঙ্ঘন করা যাবে না।

জেটিআই আচরণবিধি, পরিচালন নির্দেশিকা অথবা নীতিমালা ও পদ্ধতিসমূহ মেনে চলতে ব্যর্থতার ফলাফল শাস্তিমূলক হতে পারে।

আমরা এমন অংশীদারদের সাথে ব্যবসা করতে চাই, যারা আমাদের মূল্যবোধে বিশ্বাসী এবং আমাদের বিধিতে বর্ণিত বিষয়াবলী মেনে চলার শপথ গ্রহণ করে।

বিধির প্রত্যেকটি অধ্যায়ের জন্য বিস্তারিত তথ্যের লিংক দিয়ে দেওয়া হয়েছে, যার মধ্যে আছে:

 

আপনার কোন প্রশ্ন বা উদ্বেগের কথা কাকে জানাবেন।
প্রয়োগযোগ্য নীতিমালা ও পদ্ধতিসমূহের প্রয়োজনীয় রেফারেন্স ও লিংক।
জেটিআই-এর ইন্ট্রানেট ও ইন্টারনেটের তথ্যের লিংকসমূহ।
বিধির মধ্যেই প্রাসঙ্গিক অধ্যায়ের লিংক।

আচরণবিধিটি স্থানীয় ভাষায় অনুবাদ করা হলেও ইংরেজি সংস্করণটিই অফিসিয়াল সংস্করণ হিসেবে বিবেচ্য।

আগের সব মুদ্রিত ও ইলেক্ট্রনিক সংস্করণের পরিবর্তে এই সংস্করণটি জুন, ২০১৮ থেকে কার্যকর করা হয়েছে। হালনাগাদকরণ এবং পর্যালোচনার মাধ্যমে আচরণবিধি নিয়মিত নবায়ন করা হবে।

পূর্ববর্তী সিসিও’র শুভেচ্ছাবাণী
পরবর্তী লাইন ম্যানেজার হিসেবে আপনার ভূমিকা