আমাদের পণ্য

অবৈধ বাণিজ্যের বিরুদ্ধে দৃঢ় অবস্থান

আমরা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থা এবং সরকারের সাথে এক হয়ে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির উন্নয়নের মাধ্যমে অবৈধ তামাক বাণিজ্য বন্ধে ইন্ড্রস্ট্রিতে নেতৃত্ব দিচ্ছি।

জেটিআই'তে এর গুরুত্ব কী?

জেটি গ্রুপ অবৈধ তামাক ব্যবসার বিরুদ্ধে অবস্থান নেয় এবং নিজস্ব সাপ্লাই চেইন সুরক্ষিত রাখতে সব ধরণের অবৈধ বাণিজ্যের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করতে অঙ্গীকারবদ্ধ। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আমরা আমাদের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থার সাথে এক হয়ে কাজ করি।

অবৈধ তামাক বৈধতামাক ব্যবসাকে ধ্বংস করে দেয়, সরকারের রাজস্ব আয় কমিয়ে দেয় এবং সুসংবদ্ধ অপরাধকর্মে সহায়তা করে।

জেটিআই-এর তামাক পণ্য বৈধ পথে তাদের গন্তব্য বাজারের প্রাপ্তবয়স্ক ভোক্তাদের কাছে পৌঁছায় এবং এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়ার জন্য অত্যন্ত নিবিড়ভাবে বাজার ও গ্রাহকদের পর্যবেক্ষণ করে।

একজন জেটিআই কর্মীর কাছে এর গুরুত্ব কী?

একটি বৈধ তামাক সাপ্লাই চেইন নিশ্চিত করতে জেটিআই-এর প্রচেষ্টাকে সমর্থন দেওয়ার লক্ষ্যে আমি জেটিআই সাপ্লয়ার স্ট্যান্ডার্ড ও প্রাসঙ্গিক জেটিআই পলিসি সম্পর্কে সচেতন, এমন কাউকে ব্যবসায়িক অংশীদার করার বিষয়টি নিশ্চিত করি। আমাদের কাছ থেকে তামাকজাত পণ্য ক্রয় করে কিংবা লেনদেন করে এরকম সকল ব্যবসায়িক অংশীদারকে অবশ্যই স্বনামধন্য এবং আমাদের সরবরাহকারী ও গ্রাহক কর্তৃক স্বীকৃত হতে হবে। জেটিআই-এর পণ্য কিংবা ব্যবসায়িক অংশীদারকে কোন সন্দেহজনক লেনদেন কিংবা কার্যক্রমে জড়িত দেখলে

আমি অবশ্যই অ্যান্টি-ইলিসিট ট্রেড অথবা কমপ্লায়্যান্স টিমের একজন সদস্যের কাছে সে বিষয়ে অভিযোগ করি।

আমাদের ব্যবসায়িক অংশীদারগণের কাছে এর গুরুত্ব কী?

আমরা আশা করি যে, আমাদের ব্যবসায়িক অংশীদারগণ নিজেদের এবং জেটিআই-এর ব্যবসায়িক কার্যক্রম ও সাপ্লাই চেইনকে অবৈধ বাণিজ্য থেকে রক্ষা করতে নিরাপত্তারক্ষীর ভূমিকা পালন করবেন।এছাড়াও আমাদের সরবরাহকারী ও গ্রাহকদের সাটিফিকেশন কার্যক্রমে আমাদের সকল ব্যবসায়িক অংশীদারগণের পূর্ণ সহযোগিতা আশা করি।

আমাদের অ্যান্টি-ইললিসিট ট্রেড টিম জেটিআই পণ্যের যেকোনো ধরণের তদন্ত করতে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সাথে কাজ করে।কোনও তদন্ত যদি আমাদের ব্যবসায়িক অংশীদারদের কাউকে সন্দেহের মধ্যে ফেলে দেয় তবে আমরা আমাদের সাপ্লাই চেইন সুরক্ষিত করার জন্য যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করি, প্রয়োজন হলে এমনকি ব্যবসায়িক সম্পর্ক বন্ধ করে দেওয়া সহ।

সংখ্যায়

  • সারাবিশ্বে গড়ে ১০টির মধ্যে ১টি সিগারেট অবৈধ
  • প্রতি বছর ৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারেরও বেশি রাজস্ব কর ফাঁকি দেওয়া হয়
  • ২০১৭ সালে ১ বিলিয়নেরও বেশি অবৈধ সিগারেট বাজেয়াপ্ত করা হয়, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থার সাথে আমাদের বন্ধুত্বের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা।

বিস্তারিত জানুন